মানুষের জন্য মানুষ।অাসুন সবাই মিলে অসহায় মানুষের পাশে দাড়ায়

আমি একজন দরিদ্র বাহির একটু সহযোগী করতে চাই” আপনারা যদি আমাকে সহযোগিতা করেন আমি অনেক ধন্য হব যে যার যতটুকু পারেন ভাইরিকে; সাহায্য করবেন প্লিজ” এটা শেয়ার করবেন এন্ড যতটুকু পারেন সাহায্য করবে।।
টাকার অভাবে আমার চিকিংসার কারাতে পারছিনা।।।
২০১৩ সালের একটি দুর্ঘটনায় আমার জীবনে নেমে আসে ঘোর অন্ধকার,,
সেই থেকে চোখের পানিতে ধুয়ে যায়, আমার জীবনের সব রঙ্গিন স্বপ্ন,,আমি হয়ে যাই অচল, অক্ষয়, এক শারীরিক প্রতিবন্ধী আমার শরীরে নেই কোন বোধ শক্তি, আমার সারা শরীর দুর্বল। হাতের অসাড় আঙ্গুলগুলো বেঁকে যায়, তাই বাঁকা আঙ্গুলগুলো দিয়ে কিছুই খেতে পারি না,, আমার জনম দুঃখী মা আমাকে খাইয়ে দেয়,জানি না, এ ভাবে মা আমাকে কত দিন খাইয়ে দিবে,, এই অকেজো শরীরিটা নিয়ে কি আর করব আমি আল্লাহ্ কাছে মৃত্য কামনা করতে পারি না, এটা নাকি নিষেধ,
আমার সময়কাটে না, আমার একেক দিন যেন একেক বছর, তাই আমার পাশের বাড়ির এক ভাই বিদেশ থাকে, তার কাছ থেকে একটা মোবাইল চেয়ে নিয়েছি, আমি কোন রকম বাঁকা আঙ্গুলগুলো দিয়ে মোবাইল বেব্যহার করতে পারি, ফেসবুক চালাতে পারি,, খুব আস্তে আস্তে বাংলায় লেখতে পারি, কি আর করব দিন – রাত একা একা চৌকিতে শুয়ে থাকি, আমার মা মাঝে মধ্যে কোলে করে আমাকে হুয়িল চেয়ারে শুয়ে দেয়, তখন একটু বাহিরের জগতে আসার সুযোগ হয়, যাই হোক দুধের অভাব ঘোলে মিঠাতে চেষ্টা করি, কেউ আমার সাতে গল্প করে না, বন্ধুরা আজ কেউ আমার কাছে আসে না,পাসে বসে একটু গল্প করে না, তাদের আর দোষ কি, আমি একজন প্রতিবন্ধী, হাঁটতে পারি না, চলতে পারি না, দেখতে খারাপ হয়ে গেছি,
আমার জীবনটা এই রকম ছিল না, এক সময় আমিও হাঁটতাম দৌড়াতাম, সুস্হ মানুষ হিসাবে সব কিছুই করতাম, আমার চোখেও ছিল বড় হওয়ার স্বপ্ন,, একটি দুর্ঘটনা সব কিছুকে শেষ করে দিয়েছে, তবোও আমি আল্লাহর কাছে লাকো _ কোটি সুক্রিয়া আদায় করি, আমার এ কষ্টের বিনিময় আল্লহ পাক আমাকে নেকি অর্জন করার সুযোগ দিয়েছেন। আমি আশা করি যে, আমার এই কষ্টে ভরা জীবনের বিনিময়ে আল্লহ্ আমাকে ক্ষমা করে, পরকালে একটু সুখের ব্যবস্থা করবেন। ডাক্তারি ভাষায় এই সমস্যা নাম স্পাইনাল কর্ড ইনজুরি।
আমার বাবা মারা গেছেন।মা ছাড়া পৃথিবীতে আমার আপন বলতে কেউ নেই।এটা ভেবে খুব কষ্ট হয় যে মা মারা গেলে আমার কি উপায় হবে। মানুষ বিপদে পড়লে মানুষকেই এগিয়ে আসতেহয়। কেউ এগিয়ে আসলোনা, সবাই যদি অল্প কিছু দিয়েও সাহায্য করতো তাহলেই আমার চিকিৎসাটা চালিয়ে যেতে পারব, আপনারা সবাই ইচ্ছে করলেই আমাকে সাহায্য করতে পারেন,সবাই মিলে এক জনকে সুস্থ জীবন দিতে পারবেন না? আমি জানি প্রবাসী ভাইদের মন অনেক ভালো হয়, তাই তাদের উদ্দেশ্য করে বলা? দয়া করে সবাই আমাকে সাহায্য করুন,আমি অবহেলা জীবন চাই না, কারো উপর বোঝা হয়ে থাকতে চাই না, সুন্দর ভাবে, সবার মতো মর্যাদার সাথে বাচতে চাই।
অসুস্থ মানুষকে ভালবাসলে, তাদের দিকে সু’দৃষ্টিতে তাকালে আল্লাহ তার দিকে রহমতের দৃষ্টিতে তাকাবেন।আমি একজন অসহায় গরিব মানুষ ভাই আমাকে আল্লাহ আস্তে কিছুটা সাহায্য সহযোগিতা করুন। এটা আমার পার্সোনাল বিকাশ নাম্বার 01843128978
আমার এই নাম্বারে ইমোও আছে। আমার বাড়ি ঠিকানা গ্রাম নিজকালিকাপুর, থানা পরশুরাম, জেলা ফেনী?
Advertisements

Life is Gone

তুমি যখন সত্যিকারে কাউকে ভালোবাসাবে তখন অন্য কাউকে ভালোবাসার ইচ্ছা শক্তি টা মরে যায়

অবুঝ নারী

নারীরা তাদের ভালো মন্দ বুঝার মত সেই জ্ঞান অর্জন অাজও করতে পারে নি?তারা যদি ও পড়ালেখা করে ভালো চাকরি অথবা ভালো শিক্ষা গ্রহণ করেও তারা অাজ সমাজের কাছে অবুঝ জ্ঞানহানী এর অন্তর ভূক্ত জড়িয়ে অাছে?তারা সব সময় অন্যকে Follow করে কিন্তু নিজে কে বুঝতে শিখে নাই.?অন্য কি করতেছে সেটার দিকে লক্ষ্য করে অাজ তারা নিজেদের কে রাস্তায় নামিয়ে দিলো?
বিস্তারিিত…?

তুমি ভালো থেকো?

একটা মানুষ তখনই স্বার্থ পর হয়ে যায়। যখন তার স্বার্থ অনাদায় হয়?যত দিন তার স্বার্থ উদ্ভাব হবে নাতক দিন সে তোমার সাথে থাকবে এটাই অস্বাভাবিক। কিন্তু একটা মানুষকে কেন তোমরা মিথ্যা ভালোবাসার মায়ায় পেলো, তোমাদের ভালোবাসা টা কি তাদের অপরাধ ছিলো.?যদি তাদের কে ভালোবাসাতে তোমাদের সমস্যা হয়েই থাকতো তাহলে কেনই বা মিথ্যা ভালোবাসার অভিনয় করো তোমরা?

অাজকে সমাজ নষ্টের পথে.?

অাজকের সমাজ নষ্ট করার প্রথম কারণ হল বের্দপর্দা.? এই বের্দপর্দা কারনে অামাদের অাজকে যুব সমাজ নষ্টের দিকে পা বাড়াচ্ছে?কারণ যুব সমাজকে নষ্টের দিকে নিয়ে যাচ্ছে অামাদেরই দেশের নারীরা.?তাদের কারণে অামার সমাজে এ বিভিন্ন ঘটনা ঘটেই চলতেছে? কিন্তু এতে কোনো প্রতিবাদ করতেছে না অামাদের দেশের মানুষ গুলো?যেখানে তারা প্রতিরোধ করবে.? সেখানে তারাই নারীদের উৎসাহিত দিচ্ছে? কারণ ধ্বংস হচ্ছে অামাদের দেশের মনবতা? অামাদের দেশে প্রায় ৯০% বের্দপর্দা চালাফেরা করে.?অার ১০% পর্দা বা বোরকা পড়ে চালাফেরা করে?অাপনি কি জানেন সমাজে বের্দপর্দা নারীদের জন্য অনেক বিপদ জনক.?বের্দপর্দার কারনে তারা তাদের সম্মান নিজের হতে নষ্ট করতেছে?বের্দপর্দা চালাফেরা কারনে হচ্ছে ইপটিজিং, ধর্ষণ, হয়রানি ইত্যাদি ঘটনা.?পোষাক পড়ে মানুষের দেহ ডাকার জন্য কিন্তু বর্তমানে যে সকল পোষাক পড়তেছে তাদের দেহ পর্যন্ত দেখা যাচ্ছে.?তাহলে তুমি যদি অন্যকে দেহ দেখাতেই চাচ্ছো তাহলে পোষাক কেন পড়তেছ.?তোমার মধ্যে কি কোনো মূল্যবোধ বা শিক্ষা বলে কি কিছু অাছে? অামার তো মনে হয় না?যতদিন বের্দপর্দা তোমরা চালাফেরা করবে তত দিনই তোমরা ইপটিজিং, ধর্ষণ, হয়রানি মুলক ঘটনার মধ্যে তোমরা পড়বে?প্রতি দিনই নিউজে পাওয়া যাচ্ছে,পটিজিং, ধর্ষণ, হয়রানি ঘটনা ঘটেই চলতেছে শুধু মাত্র তোমাদের বের্দপর্দা কারনে.?কোনো নিউজ পেপারে অাসেনি পর্দা বা বোরকা পড়া কোনো নারীকে কেউ ডিস্টাব, ইপটিজিং,ধর্ষিত হতে?বরং পর্দায় থাকা নারীরা সব সময় হেফাজতে থাকে?তাদের কে সবাই সম্মান করে?

বিস্তারিত পরে অাসতেছে….?

বড় হতে হলে ছোট থেকে শুরু করতে হবে.?

অামাদের জীবনে অনেক কিছু গড়ে থাকে.?কোনো টা কারো উপর চ্যালেঞ্জ হিসাবে.?অাবার কোনটা পরিস্থিতির উপর.? কিন্তু দুইটাই অামাদের জীবন কে বদলাতে সক্ষম করে.

কিন্তু কোনো কোনো সময় চ্যালেঞ্জ গুলো অামাদের জীবনের প্রতি বেশি প্রভাবিত করে পেলে..?

এতটাই মারক্তক যেটার ক্ষতিপূরণ কোনো ভাবে পাওয়া যাবে না.?বরণ ক্ষতিই হয়ে থাকবে.?

তাই কোনো কাজ করতে হলে ভেবে চিন্তে করা উচিত?অন্যদের কাজ থেকে পরামর্শ নেওয়া দরকার.?ধর্য দরে কাজ করতে হবে.?তাহলে তুমি জীবনে Success হতে পারবে.?100% গ্যারান্টি.?